বাংলা ছোট স্ট্যাটাস

বাংলা ছোট স্ট্যাটাস। বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদের সাথে কিছু বাংলা ছোট স্ট্যাটাস শেয়ারকরবো আশা করি আজকের এই লেখাটি আপনাদের কাজে দিবে।

লিপস্টিক লাগালে যদি

মেয়েরা হয় বিউটি।

তাহলে সেটা টেস্ট করা ছেলেদের Duty.

 

স্টার জলসা আর জ্বি বাংলা খুলে দেওয়া হয়েছে।

হয়তো এবার জবা ভেকসিন আবিষ্কার করে ফেলবে।

 

আজ পর্যন্ত একটা গফ পেলাম না।

অথচ আজকে স্বপ্নে বউ পিটাইছি।

একটা ফোন কিনছি রে ভাই ।

১ ঘন্টা নেট চালাইলে।

২ ঘন্টা কাপড় ইস্ত্রি করা জায়।

 

আরও পড়ুন: bangla attitude status

 

তোর আম্মু তোরে খুজতেছে,

তারাতাড়ি বাসায় যা।

ছোটবেলায় এটা শুনলে বুকটা কেপে উঠতো!

 

তোমাদের স্বপ্ন রাতে রাজকুমার আসে।

আর আমার ভুত পেত্নী আসে।

People : তুমি নাকি রিলেশন করো শুনলাম।

আমি : হ্যাঁ আমিও শুনছি! কিন্তু শিউর না।

 

বাবা হওয়ার সপ্ন দেখিয়ে ।

মামা বানিয়ে চলে যাওয়ার নামই হলো ।

Same age Relationship

 

আরও পড়ুন: bangla love status


তেলাপোকা দেখে ভয় পাওয়া মেয়েটা ও এফবিতে পোষ্ট দেয় বিয়ের পর জামাই পিডাবো!

 

কারো- Relationship স্ট্যাটাস দেখলে।

others- Congratulation

me: দেখবো কয়দিন থাকে।

 

না আছে পারিবারিক সম্পর্ক,

না আছে রক্তের সম্পর্ক ।

তবুও বিপদে আপদে যে পাশে থাকে তার নাম মোবাইল !

 

বাঙালি ব্যাটারি দিয়ে রিমোট চালায় দুই মাস ।

আর থাপ্পড়াইয়া চালায় ছয় মাস।

 

গায়ের রং দেখে নয়, মন দেখে ভালোবাসা উচিত!

 

তোমাকে পছন্দ করি,

তবে তুমি প্রপজ করলে প্রেম করবো নয়তো করবো না!

 

ব্রেকাপের কষ্ট অনেক বেশি ।

তাতে আমার কি,

আমিতো সিঙ্গেল ।

 

আমাকে রিপ্লাই দাও নাকি ওষুধ দাও বুঝিনা ।

সকালে একটা দুপুরে একটা রাতে একটা।

 

চাইলে চুল আমিও কালার করতে পারি।

কিন্তু বাসায় আশ্রয়টা আমার কাছে বেশি জরুরি।

 

আমার বন্ধুগুলার চেহারা

মাশাল্লাহ

কিন্তু তাদের চরিত্র

আস্তাগফিরুল্লাহ।

 

আজ সকালে শিশু পার্কে এ গেছিলাম ।

শিশু তো নাই.. তবে ।

শিশু তৈরির কাজ চলতেছে ।

 

নিজের Voice record করে শুনলাম ।

যাদের সাথে ফোনে কথা বলি।

তারা আমাকে মাফ করে দিও।

 

রবীদ্রনাথ কিন্তু ১২ বছরে বিয়ে করেছেন।

কথাটি সকল গার্জিয়ানদের জানা দরকার।

 

কলেজ গিয়াও যদি তুই

সিঙ্গেল থাকস ।

তাইলে তোরে দিয়া এই জীবনে প্রেম হবেনা।

 

পরিবারের ছোট সন্তানগুলো।

সবসময় নম্র ভদ্র ও লক্ষী টাইপের হয়।

যেমন আমি।

 

কিছু মানুষের ভাব দেখলে মন চায়,জুতা খুইল্লা।

খালি পায়ে হাটিঁ।

 

আয়নায় আমি যতবার তাকাই,

ততো বার একটি নিষ্পাপ শিশুকে দেখতে পাই।

 

মোবাইল গিল্লা খা মোবাইলের মধ্যে ঢুইকা যা।

সূত্র:দৈনিক মায়ের কন্ঠ।

 

সবার রাজকুমার ঘোড়ায় চড়ে আসে।

আমার টা মনে হয় কচ্চপের পিঠে উঠছে।

 

আমি সারাদিন পোস্ট করি।

কারন তোমাদের মতো আমার messenger এ সংসার নাই।

 

দিনশেষে আমাকে যে কথাটি শুনতে হয়।

বাড়ির কোন কাজটা তুই করিস।

 

In a relationship

এক দিন আমি ও দিবো এই পোস্ট।

আর তোমরা এসে আমাকে Congratulations জানাবা।

 

ডিপ্রেশনে আছেন।

ইনবক্সে আসেন।

সুইসাইড পর্যন্ত টেনে নেওয়ার

দায়িত্ব আমার..!

 

পৃথিবীর যত ছেলে খেয়েছে যত বাঁশ ।

অর্ধেক তা দিয়েছে নারী।

অর্ধেক তার Crush

 

যেদিন বাসা থেকে ফকিন্নির মতো বের হই।

সেদিনই ক্রাশের সাথে দেখা হয়।

 

কবি বলেছেন,

যেখানে সম্মান নেই, সেখানে যেও না।

তাই বলে কী আমি আমার বাসায় যাবো না।

 

মাঝে- মাঝে স্বপ্নের বাকি টুকু দেখার জন্য।

আবার ঘুমিয়ে পড়া আমি..!

 

– Arrange Marriage:

ওগো তুমি খেতে আসো ।

– Love Marriage :

এই কুত্তা খেতে আয়।

 

লুইচ্চা,

অনেক বড় লুইচ্চা।

যারা সিনিয়র আপুর সাথে প্রেম করতে চায়!

 

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় অত্যাচার।

পাশের বাড়ির বিরিয়ানির গন্ধ ।

 

বাঙালী যতই ব্যস্ত থাকুক না কেনো।

রাস্তায় কোন ঝগড়া দেখলে দাড়াবেই।

 

নিজেই রিকুয়েষ্ট দিয়া নিজেই জিগাস কে আপনি?

আচ্ছা গাজা কি ভুনা কইরা খাইছোছ?

 

কারো বুকে আছি কিনা জানিনা।

কিন্তু ফেইস-বুকে ঠিকই আছি।

 

মেয়েরা ই বেশি লুচ্চা হয়।

বাসর রাতে আগে গিয়ে বসে থাকে।

 

যত্নে থাকা চুলগুলা ঝরে যায়।

কিন্তু অযত্নে থাকা চুল গুলা টানলেও ছিড়ে না।

 

১২ ভাতারিদের শেষ স্থান।

৪০ বছরের বুড়া সরকারী চাকুরিজীবী / বিদেশি কাকু।

 

বাঙালি গিফট পেয়ে কখনো Thank

you বলে না ।

বলে এসবের কি দরকার ছিল।

 

পুরুষ হয়েও যাহার গালে নাই দাড়ি।

কবি তার নাম দিয়েছে সীমিত আকারে নারী।

 

আম্মুকে যখন কিছু বুঝাইতে যাই ।

Ammu : আমি তোর পেটে হইছি নাকি

তুই আমার পেটে হইছোস।

 

বিয়ের পর এক ব্রাশে দুইজন দাঁত মাজবো।

এতে ভালোবাসা বাড়বে।

 

কপাল আর লুঙ্গীর মধ্যে মিল কোথায়?

দুটোই যেকোনো সময় খুলে যেতে পারে !

কপাল খুললে পৌষ মাস,

আর লুঙ্গী খুললে সর্বনাশ।

 

কবি বলিয়াছেন

– Bf এর সাথে রোজ ঝগড়া করলে।

মেয়েদের সৌন্দর্যের বৃদ্ধি হয়।

 

আমার খুব হাসি পায়,

যখন আম্মু কারো কাছে আমার প্রশংসা করে।

 

আজ গরিব বলে পৃথিবীতে থাকি,

বড়লোক হলে মঙ্গল গ্রহে থাকতাম।।

 

তুমি যাকে Lifeline ভাবো।

সে তোমাকে কারেন্ট এর লাইন ও ভাবে না।

 

সেড পোষ্টে কেউ যদি হা -হা মারে।

তখন মনডা চাই তাদের বিষ খাউইয়া।

আমি মরে যায়।


আমি: মা আমার খুব মাথা ব্যাথা করছে।

মা: মোবাইল থেকে ওষুধ ডাউনলোড করে খা।

 

ডিয়ার ফিউচার বর

ধীরে- ধীরে সে মেরি জিন্দেগী মে আনা।

আসার সময় বিরিয়ানি,

ফুচকা,চকলেট লে আনা।

Was this article helpful?
YesNo

2 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.